1. admin@thedailyajkal.com : TARIP : MAHMUDUL HASAN TARIP
  2. newsdailyajkal@gmail.com : MAHMUDUL HASAN TARIP : MAHMUDUL HASAN TARIP
মঙ্গলবার, ১৮ জুন ২০২৪, ১০:৪৬ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
চলমান তাপদাহে অগ্নি দুর্ঘটনা এড়াতে ব্যাবসায়ীদের সাথে ইউএনও’র সচেতনতামূলক সভা রাণীশংকৈলে ভ্রাম্যমাণ আদালতে ২ বালু ব্যবসায়ীকে ১৫ দিনের কারাদন্ড শ্রমিক লীগ নেতার গলায় ফাঁস নেওয়া অবস্থায় ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার রাণীশংকৈলে দুই ইটভাটা মালিককে ভ্রাম্যমান আদালতে জরিমানা রাণীশংকৈলে উপজেলা নির্বাচনে ৩ পদে ১৩ প্রার্থীর মনোনয়নপত্র দাখিল ট্রাইকো কম্পোস্ট সারে সাফল্য কোকোডাস্ট পদ্ধতিতে চারা উৎপাদনে সাফল্য মালচিং পেপার পদ্ধতিতে সবজি চাষ করে কৃষক অধিক লাভবান রাজবাড়ীতে দাঁড়িয়ে থাকা পাট বোঝাই ট্রাকে, গ্যাস বহনকারী ট্রাকের ধাক্কা, নিহত ১ আমাদের হোসেনপুর ফেইসবুক গ্রুপের ঈদ পূর্ণমিলনী

কলাপাড়া থানার ওসিকে প্রত্যাহার চেয়েছে নির্বাচন কমিশনসহ সংশ্লিস্ট দপ্তরে লিখিত অভিযোগ দাখিল।।

  • আপডেট সময় : বৃহস্পতিবার, ৭ ডিসেম্বর, ২০২৩
  • ৩৬২ বার পঠিত

কলাপাড়া (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি:

পটুয়াখালী জেলার কলাপাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে প্রত্যাহার করার আবেদন জানিয়েছে দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনে পটুয়াখালী-৪ (কলাপাড়া-রাঙ্গাবালী) আসনে স্বতন্ত্র প্রার্থী মো. মাহবুবুর রহমান।

আজ বুধবার প্রধান নির্বাচন কমিশনার বরাবরে লিখিতভাবে তিনি এ আবেদন করেছেন। এই সঙ্গে অনুলীপী প্রদান করা হয় সচিব, বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশন, বরিশাল রেঞ্জের ডি,আইজি, পটুয়াখালী জেলা প্রশাসক ও রির্টনিং অফিসার, পুলিশ সুপার এবং উপজেলা সহকারী রির্টানিং অফিসারসহ গরুত্বপূর্ণ দপ্তরে।

মাহবুবুর রহমান তাঁর লিখিত অভিযোগে বলেন, আমি পটুয়াখালী-৪ আসনের একজন স্বতন্ত্র প্রার্থী। অবাধ, সুষ্ঠু, অংশগ্রহনমূলক এবং প্রতিদ্বন্ধিতাপূর্ণ নির্বাচন অনুষ্ঠানে নির্বাচন কমিশনের প্রত্যয় ও প্রতিশ্রুতির প্রেক্ষিতে আমি দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনে অংশগ্রহনের সিদ্ধান্ত গ্রহন করি। কিন্তু দুর্ভাগ্যজনক হলেও সত্য কলাপাড়া থানার ওসির কর্মকান্ডে কমিশন প্রতিশ্রুত লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড নষ্ট হতে চলছে।

এর কারণ হিসেবে তিনি বলেন, গত ৩০ নভেম্বর নির্বাচনী ফরম দাখিলের জন্য আমার বাসভবনে দোয়া ও মিলাদের আয়োজন করি। ২৯ নভেম্বর সারারাত উপজেলাব্যাপী আমার কর্মী-সমর্থকদের বাসাবাড়িতে গিয়ে ভয়ভীতি প্রদর্শন ও হামলা করা হয়। এ ঘটনা ওসি সাহেবকে অবহিত করলেও তিনি কোনো ব্যবস্থা না নিয়ে পরোক্ষভাবে ভীতিকর পরিস্থিতি সৃষ্টিতে সহায়তা করেন। ৩০ নভেম্বর সকাল থেকেই আমার সাথে সাক্ষাত করতে আসা কর্মী-সমর্থকদের বর্তমান এমপি মহিব সাহেবের সন্ত্রাসী বাহিনী শহরের বিভিন্ন পয়েন্টে হামলা করে। আমার দুইজন কর্মীকে প্রকাশ্য দিবালোকে কুপিয়ে রক্তাক্ত জখম করে। এ ছাড়া দুই শতাধিক কর্মীকে লাঠিপেটা করে আহত করা হয়। এ ঘটনা নিয়ে থানায় মামলা করতে গেলে কালক্ষেপন করে থানায় মামলা গ্রহন করেন নাই। এতে জনমনে সংশয় ও নিরাপত্তাহীনতার সৃষ্টি হয়েছে। জনশ্রুতি আছে, বর্তমান ওসি আলী আহম্মদ পাঁচ মাস পূর্বে এমপি মহিবের পক্ষে কাজ করার অঙ্গীকার করে তাঁর (এমপি মহিব) প্রচেষ্টায় কলাপাড়া থানায় বদলী হয়ে আসেন।

অভিযোগ করে স্বতন্ত্র প্রার্থী আরও বলেন, বর্তমান এমপি মহিব কর্মীসভার আদলে প্রতিদিন কর্মীসভার আদলে ১০-১৫টি জনসভা করছেন। এমনকি প্রতিটি ইউনিয়নে ৩৫-৪০টি মোটরসাইকেলে সন্ত্রাসী মহড়া চালায়। এসব ব্যাপারে ওসিকে অবহিত করলেও কোনো প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করছেন না। এমতাবস্থায় কলাপাড়া থানার ওসিকে বদলী না করলে নির্বাচন কমিশন প্রতিশ্রুত অবাধ, সুষ্ঠু ও অংশগ্রহনমূলক নির্বাচন বাঁধাগ্রস্থ হবে এবং ভোটারগণ কেন্দ্র বিমুখ হয়ে পড়বে।

স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে মাহবুবুর রহমান কলাপাড়া থানার ওসি আলী আহম্মদকে অতি সত্ত্বর বদলী করে অবাধ, সুষ্ঠু ও অংশগ্রহনমূলক নির্বাচন অনুষ্ঠানের দাবি জানিয়েছেন।

কলাপাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আলী আহম্মদের সঙ্গে এবিষয়ে যোগাগো করা হলে তিনি বলেন, আমার প্রত্যাহারের জন্য কী অভিযোগ দায়ের করেছে তাতো আমি জানি না। তবে আমার বিষয়ে যদি অভিযোগ দায়ের হয় তবে তা প্রমান করার জন্য সংশ্লিস্ট উর্ধতন কর্তৃপক্ষ রয়েছে, তারা তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নিবেন।

Facebook Comments Box
এই জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা

© স্বত্ব সংরক্ষিত © ২০২৩ দৈনিক আজকাল

Theme Customized By Shakil IT Park