1. admin@thedailyajkal.com : TARIP : MAHMUDUL HASAN TARIP
  2. newsdailyajkal@gmail.com : MAHMUDUL HASAN TARIP : MAHMUDUL HASAN TARIP
মঙ্গলবার, ১৮ জুন ২০২৪, ১১:০০ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
চলমান তাপদাহে অগ্নি দুর্ঘটনা এড়াতে ব্যাবসায়ীদের সাথে ইউএনও’র সচেতনতামূলক সভা রাণীশংকৈলে ভ্রাম্যমাণ আদালতে ২ বালু ব্যবসায়ীকে ১৫ দিনের কারাদন্ড শ্রমিক লীগ নেতার গলায় ফাঁস নেওয়া অবস্থায় ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার রাণীশংকৈলে দুই ইটভাটা মালিককে ভ্রাম্যমান আদালতে জরিমানা রাণীশংকৈলে উপজেলা নির্বাচনে ৩ পদে ১৩ প্রার্থীর মনোনয়নপত্র দাখিল ট্রাইকো কম্পোস্ট সারে সাফল্য কোকোডাস্ট পদ্ধতিতে চারা উৎপাদনে সাফল্য মালচিং পেপার পদ্ধতিতে সবজি চাষ করে কৃষক অধিক লাভবান রাজবাড়ীতে দাঁড়িয়ে থাকা পাট বোঝাই ট্রাকে, গ্যাস বহনকারী ট্রাকের ধাক্কা, নিহত ১ আমাদের হোসেনপুর ফেইসবুক গ্রুপের ঈদ পূর্ণমিলনী

রাজবাড়ীর দৌলতদিয়া নদীবন্দর এলাকায় অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ

  • আপডেট সময় : মঙ্গলবার, ৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪
  • ৯৭ বার পঠিত

রাজবাড়ী প্রতিনিধি ঃ

রাজবাড়ীর দৌলতদিয়া নদী বন্দর দখল করে গড়ে ওঠা ১১০টি অবৈধ স্থাপনা ভেঙে দিয়েছে বাংলাদেশ অভ্যন্তরীন নৌপরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআইডব্লিউটিএ)।

(৫ ফেব্রুয়ারি) সোমবার সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত এ উচ্ছেদ অভিযান চলে। বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন কর্তৃপক্ষ’র এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট হাসান মারুফ এই উচ্ছেদ অভিযানের নেতৃত্ব দেন।

প্রায় ৩৭ বছর আগে দৌলতদিয়া নদী বন্দরের ট্রাক টার্মিনাল এলাকায় ১১০টি অবৈধ স্থাপনা নির্মাণ করে প্রভাবশালীরা।

সোমবার সকালে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ অভিযান শুরু করার প্রস্তুতি গ্রহণ করলে বাধা দেয় গোয়ালন্দ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ মোস্তফা মুন্সী, গোয়ালন্দ পৌরসভার মেয়র মোঃনজরুল ইসলাম মন্ডল, ভাইস চেয়ারম্যান মোঃ আসাদুজ্জামান চৌধুরী, দৌলতদিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ আব্দুর রহমানসহ এলাকাবাসী।

তাদের অভিযোগ দৌলতদিয়া ইউনিয়ন নদী ভাঙন এলাকায়,
প্রতি বছর শত শত একর জমি নদীগর্ভে বিলীন হয়ে যায়। পদ্মা সেতু চালুর পর দৌলতদিয়া প্রান্তে ব্যবসা-বাণিজ্যে ভাটা পড়েছে।

এসব ব্যবসা প্রতিষ্ঠান উচ্ছেদ করলে সাধারণ মানুষ মানবেতর জীবনযাপন করবেন।
সকল বাধা উপেক্ষা করে উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করেন ম্যাজিস্ট্রেট হাসান মারুফ। তিনি বলেন দীর্ঘদিন ধরে প্রভাবশালীরা বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন কর্তৃপক্ষের অধিগ্রহণকৃত জায়গা দখল করে আছে। এখানে কোন ইজারা দেওয়া হয়নি।

অনেক বার তাদের সরে যেতে বলা হয়েছে। তারা বিআইডব্লিউটিএ’র নির্দেশনা মানেনি। সোমবার দিনব্যাপী উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করে শতাধিক স্থাপনা সরিয়ে দেওয়া হয়েছে। আগামীতে যেন এসব জায়গা দখল না হয় সেটি নিয়ে কাজ করবে বিআইডব্লিউটিএ কর্তৃপক্ষ।

উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনার সময় গোয়ালন্দ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জ্যোতি বিকাশ চন্দ্র, বিআইডব্লিউটিএ’র আরিচা নদী বন্দরের যুগ্ম পরিচালক এস এম সাজ্জাদুর রহমান, গোয়ালন্দ ঘাট থানার অফিসার ইনচার্জ প্রানবন্ধু বিশ্বাস উপস্থিত ছিলেন।

Facebook Comments Box
এই জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা

© স্বত্ব সংরক্ষিত © ২০২৩ দৈনিক আজকাল

Theme Customized By Shakil IT Park